কিভাবে ইপাব পড়বে?

ইপাব কি? কেন পড়বেন, কিভাবে পড়বেন?

ePUB একটি জনপ্রিয় ফাইল ফরম্যাট। আমরা যেমন পিডিএফ ফাইল ফরম্যাটের মাধ্যমে আজ মোবাইলে বই পড়ছি তেমনি ePUB ফাইল ফরম্যাটের মাধ্যমে মোবাইল, ট্যাবলেট কিংবা পিসিতে বই পড়া যায়। আজ পর্যন্ত যে সকল ডিভাইসে পিডিএফ বই পড়া যাচ্ছে সেই সকল ডিভাইসেই ইপাব বইও পড়া যায়। বরং অনেক ডিভাইস আছে যে গুলোতে পিডিএফ বই পড়া যায় না কিন্তু ইপাব পড়া যায়।

১. ইপাব কি?
ইপাব হলো- ইলেকট্রনিক পাবলিকেশন। সহজ অর্থে আমরা যাকে ইবুক বলে থাকি। যে বইগুলো ইলেকট্রনিক যন্ত্রাংশে পড়ার জন্য প্রকাশ করা হয় সেই বইগুলোকেই ইবুক বলে। ইপাব ছাড়াও আরও একটি বই পড়ার জনপ্রিয় ফরম্যাট হলো “মোবি”।

২. ePUB পড়তে কি আলাদা সফ্টওয়্যার লাগে?
অবশ্যই। পিডিএফ বই পড়ার জন্য যেমন এডোবি রিডারের প্রয়োজন হয় তেমনি ePUB বই পড়ার জন্যও ePUB রিডার লাগবে। ePUB পড়ার জন্য আলাদা ডিভাইস থাকলেও যেকোন মোবাইলে এ্যাপস ডাউনলোড করেও মোবাইলে ইপাব বই পড়া যায়।

৩. ePUB এর সুবিধা কি?
# ইপাব বই ডিভাইসের সাথে সামঞ্জস্য বজায় রাখতে পারে। অর্থাৎ বই পড়ার সময় জুম করে বই পড়তে হয় না। ডিভাইসের স্ক্রিন ছোট কিংবা বড় কোন কিছুতেই কোন সমস্যা হয় না।
# বই থেকে লেখা কপি করা যায় এবং যেখানে খুশি সেখানে শেয়ার করা যায়।
# ইপাব বই পুনঃউৎপাদন যোগ্য। অর্থাৎ কপিরাইট নেই এমন বইগুলো আপনি চাইলে নিজের সংগ্রহে রাখার জন্য প্রিন্ট করে রাখতে পারবেন।
# লেখার ফন্ট সাইজ পরিবর্তন করা যায়। ফন্টের রং পরিবর্তন করা যায় এমনকি বইয়ের ব্যাকগ্রাউন্ড কালার পরিবর্তন করা যায়।
# ইপাব খুব হালকা বলে কম জায়গায় অনেক বেশি বই রাখা যায়। এতে মেমোরির অপচয় কম হয়।
# যারা চোখে কম দেখেন কিংবা ছোট লেখা পড়তে সমস্যা হয় তাদের জন্য ইপাব এক যুগান্তকারী সমাধান। বিশেষ করে যারা বয়সে বৃদ্ধ কিন্তু ডিজিটাল ডিভাইসে বই পড়তে আগ্রহ আছে তাদের জন্য ইপাব সত্যিই একটা অসাধারণ সমাধান।
# ইপাবে বইয়ের পছন্দের কোন লাইন মার্ক করে রাখা যায়। সেটাতে কমেন্ট যুক্ত করা যায়। পরবর্তীতে শুধু মার্ক করা অংশ এক্সপোর্ট করে রাখা যায়।
# নির্দিষ্ট পাতা বুকমার্ক করে রাখা যায়।
# সার্চের মাধ্যমে খুব সহজেই তথ্য খুঁজে বের করা যায়।
# ডে/নাইট রিডিং মুড সুবিধা পাওয়া যায়।

৪. কোথা থেকে এ্যাপস ডাউনলোড করবেন?

এন্ড্রোয়েড-এর জন্যঃ
Android ব্যবহারকারীদের জন্য অনেকগুলো এ্যাপস আছে Playstore এ (play.google.com)। যেমন: AlReader, Moon+ Reader, FB Reader, Lithium EPUB Reader ইত্যাদি। এগুলোর মধ্যে যেকোন একটি ডাউনলোড করে নিয়ে খুব সহজে ইপাব বই পড়া যায়। তবে আমাদের পরামর্শ হলো, আপনি যদি ইপাব বইয়ে কাগজের বইয়ের আবহ পেতে চান তাহলে Lithium EPUB Reader ব্যবহার করুন। এটি খুব হালকা ও চমৎকার ফিচার সমৃদ্ধ।

Windows Phone এর জন্যঃ
আপনারা যারা Windows Phone ব্যবহার করছেন তারা এ্যাপস স্টোর থেকে Tucan Reader লিখে সার্চ দিন।

কম্পিউটারের জন্যঃ
Sumatra PDF একটি অসাধারণ পিডিএফ রিডার। এইটা পিডিএফ রিডার হলেও এর সাহায্যে ePUB এবং Mobi ফাইল খুব চমৎকার ভাবে পড়া যায়। নিচের লিঙ্ক থেকে সফ্টটি ডাউনলোড করে নিন।

এছাড়া আপনি FB Reader ব্যবহার করতে পারেন। এই সফ্টটি ব্যবহার করে আপনি ePUB ও Mobi ফাইল কম্পিউটারে পড়তে পারবেন। নিচের লিঙ্ক থেকে সংগ্রহ করুন।

Amazon Kindle Tab এর জন্যঃ
বর্তমানে কিন্ডেল ফায়ার Android OS এর Customized ভার্সন। ফলে এটিতে যেমন Android apk ব্যবহার করা যায় তেমনি Amazon Store থেকেও এ্যাপস ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যায়। আপনি যদি কিন্ডেলে Android Apps ব্যবহার করতে চান তবে উপরে Android Apps তালিকা থেকে যে কোন একটি এ্যাপ এর অফলাইন apk ডাউনলোড করে নিন। আর যদি Amazon থেকে ডাউনলোড করতে চান তবে eLibrary Manager Basic এই এ্যাপটি ব্যবহার করুন।
আর আপনি যদি Kindle এর অন্যান্য ভার্সন ব্যবহার করে থাকেন তবে লাইব্রেরী থেকে বই ডাউনলোডের সময় Mobi ফাইলটি ডাউনলোড করুন। Mobi ফাইল Kindle Paperwhite কিংবা এই ধরনের অন্যান্য ডিভাইসে কোন রকম সফ্টওয়্যার ছাড়াই পড়তে পারবেন। এছাড়া বই পড়ার অন্যান্য ডিভাইস যেমন- Kobo, Sony Reader, PocketBook Reader ইত্যাদি রিডারেও Mobi ফাইল কোন রকম সফ্টওয়্যার ছাড়াই পড়া যাবে। ক্ষেত্র বিশেষে ডিভাইস ভেদে ফন্ট নাও সাপোর্ট করতে পারে। সেই ক্ষেত্রে আমাদের পক্ষ থেকে করার কিছু নেই।

Apple ডিভাইসের জন্যঃ
iPhone কিংবা iPad এ ইপাব বই পড়ার জন্য iBooks এ্যাপ ব্যবহার করুন।

শুরু হোক আপনার ইপাবে বই পড়ার পথ চলা। এই শুধু কামনায় বিদায় নিচ্ছি আমি শিশির শুভ্র। ভাল থাকবেন সবাই।

8 comments

Home