দুধসায়ারের দ্বীপ - শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়




কাহিনী সংক্ষেপ : বিদ্যাধরপুর গ্রামে একটা বিরাট দীঘি আছে। রাজা প্রতাপচন্দ্র এটা বানিয়েছিলেন। কিন্তু দীঘি কাটার পরেও এর মধ্যে পানি উঠেনা। এক রাতে স্বপ্নে দেখলেন দেবি চামুন্ডা বলছে দীঘিতে দুধ ঢালতে, তাহলে পানি উঠবে। রাজার আদেশে ঘড়া ঘড়া দুধ ঢালা হল সেই দীঘিতে। সেখান থেকেই তার নাম হলো দুধসায়র। আর, এই দীঘির মাঝখানে দ্বীপ আছে একটা যেখানে রাজার বাগানবাড়ি ছিল, সেই দ্বীপের নাম দুধসায়রের দ্বীপ।
নিরুপদ্রব গ্রামে শুরু হলো অশান্তি। জগা পাগলার হাতে অস্ত্র দেয়া হল ভূত ছাড়ার মেশিন বলে। ওকে কেউ একজন বুঝিয়ে দিল, গ্রামের একজন নির্দিষ্ট লোকের বাড়ির জানালা দিয়ে এই যন্ত্রটা দিয়ে কিছু ভূত ছেড়ে আসতে হবে। আসলে যন্ত্রটা ছিল স্ট্যানগান। আবার স্বপ্নদেখার যন্ত্রের কথা বলে দেয়া হলো মিলিটারি হ্যান্ড গ্রেনেড। বলে দেয়া হলো ছেড়ে আসতে হবে ঐ লোকের বাড়িতে। এসবের পেছনে কে কলকাঠি নাড়ছে তা বের করতে হেনস্তা হতে হল থানার দারোগা আর মন্দিরের পুরোহিত মশায়ের।
কিছু একটা পেকে উঠছে এই গ্রাম এবং দুধসায়রের দ্বীপকে কেন্দ্র করে। তার সাথে হয়তো, রাজা প্রতাপচন্দ্রের আমলের কোনওকিছুর যোগসাজশ আছে। অবশ্য সব রহস্যের সমাধান আছে ঐ লোকের কাছে, যাকে মারার জন্য পাগলা জগাকে ব্যবহার করছে কেউ।
রিভিউ: বইপোকাদের আড্ডাখানা থেকে


ডাউনলোড : Epub Or Mobi Or PDF


সতর্কতা : বইটি শিশু-কিশোররা পড়বে এটাই আমাদের মৌলিক উদ্দেশ্য। এখানে আমার কোনো ব্যক্তিগত কিংবা ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য নেই। আমি শুধু চেষ্টা করেছি সবচেয়ে সহজ উপায়ে একটি বই শিশু-কিশোরদের মাঝে পৌঁছে দেওয়ার। যদি কোনো ব্যক্তি কিংবা প্রতিষ্ঠান কোনো অসৎ উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে এই বইটি ডাউনলোড করে থাকেন এবং ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে প্রস্তুত ও বিপণন করে থাকেন, তবে পরবর্তীতে কপিরাইট সংক্রান্ত সমস্ত দায়ভার ডাউনলোডকারীর। কোনোভাবেই সেই দায়ভার শিশু-কিশোর.অর্গ বহন করবে না। সুতরাং বই ডাউনলোড করুন, শেয়ার করুন, নিজে আলোকিত হোন, অন্যকে আলোকিত করুন। বাংলা ভাষায় সাহিত্য বিস্তারে শিশুদের মধ্যে অনুপ্রেরণা জাগান।

কোন মন্তব্য নেই

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

হোম