গোঁসাইবাগানের ভূত - শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় (বাংলা ইপাব)


ডাউনলোড: Epub Or Mobi Or PDF


বার্ষিক পরীক্ষায় অঙ্কে ১৩ পাওয়াতে বুরুনের খুব মন খারাপ। বাড়িতেও বাবা অনেক বকেছে। ছোট দুই ভাই বোন কথা বলেনা। চাকর তার কোন ফরমাশ শোনেনা। এমনকি পোষা ময়নাটা পর্যন্ত বুরুনকে ক্ষেপায়। মনের দুঃখে বুরুন বাড়ি থেকে বেরিয়ে গোঁসাইবাগানের দিকে হাটতে থাকে।
গোঁসাইবাগানে ভয়ে কেউ যায় না। নানারকম কাঁটাঝোপ ও জন্তু জানোয়ারে ভর্তি। তাছাড়া ভূতের উপদ্রবও শোনা যায়। বুরুনের মন এত খারাপ ছিল যে, তারমধ্যে ভয়ডর ছিলনা তখন। জন্তু জানোয়ার মেরে ফেললে ফেলবে। গাছ থেকে পড়ে গেলে যাবে। কোনও কিছুকেই পরোয়া করছেনা বুরুন।
মাঝ জঙ্গলে হঠাৎ নিধিরাম ভূত এসে হাজির। কিন্তু তাকে দেখে বুরুন মোটেও ভয় পায়না। নিধিরাম ভূত বিজের মুন্ডু খুলে বুরুনের সামনে ধরে, হাত পা খুলে আলাদা করে দেখায়, অদৃশ্য হয়ে আবার দৃশ্য হয়ে দেখায়। কিন্তু কিছুতেই বুরুন ভয় পায়না। এরকম পুচকে একটা ছেলেকে ভয় দেখাতে না পেরে নিধিরাম ভূত চিন্তিত। ভূত সমাজে ইজ্জত থাকবেনা। সবাই ক্ষেপাবে। উপায় না দেখে বুরুনকে অনুরোধ করে ভয় পেতে। লক্ষ্মীসোনা বুরুন একটু ভয় খাও, নয়তো ভূতের সর্দার আমার মুন্ডু কেড়ে নেবে। নীচুজাতের মামদোভূতের সাথে বাস করতে হবে আমাকে। তোমার সব কাজ আমি করে দিব, তাও একটু ভয় পাও। বুরুন উত্তর দেয়, আচ্ছা আমার কাজ করে দাও, ভয় পাই কিনা সে দেখা যাবে খন।
এরপর থেকে বুরুন নিধিরাম ভূতের সাহায্যে জটিল কঠিন অঙ্ক নিমিষেই কষে ফেলে। ইংরেজি ট্রান্সলেশন সবার আগে করে ফেলে। ক্রিকেট খেলায় ডবল সেঞ্চুরি করে। প্রতিপক্ষকে ১.৪ ওভারে অলআউট করে ফেলে। ক্রিড়াপ্রতিযোগিতায় সব খেলায় ফার্স্ট হয়।
এদিকে গুজব শোনা যাচ্ছে হাবু গুন্ডা জেল থেকে ছাড়া পাচ্ছে। এই এলাকার দুর্ধর্ষ ডাকাত ছিল হাবু। মন্ত্রবলে ভূতেদের দিয়ে কাজ করাতো। বাঘ বশ করে বাঘের পিঠে চলাফেরা করত। সেই হাবু গুন্ডা কে ধরতে এসে তিনজন দারোগা ভয়ে বদলি নিয়ে চলে যায়। চতুর্থ দারোগা সাহসি ছিল। সে বুরুনের দাদা রাম বাবুর সাহায্যে কৌশলে হাবুকে ধরে ফেলে। কোর্টে রাম বাবু সাক্ষী দেন। হাবু বের হলেই রামবাবুর বিপদ, প্রতিশোধ নিবে হাবু। এদিকে নিধিরাম ভূতও ভয়ে অস্থির। হাবু আবার আসলে, মন্ত্রদিয়ে তাদের বেধে যা ইচ্ছা তাই করিয়ে নিবে।
অবশেষে বেরুলো হাবু। এলাকায় বাঘের গর্জন শোনা যেতে লাগল। হোলির দিন রঙ খেলতে গিয়ে আর ফিরল না বুরুন। তবে কি বুরুন কে হাবু আটকে রেখেছে? নিধিরাম ভূত কি কোনওভাবে সাহায্য করতে পারবে না বুরুন কে?

রিভিউটি বইপোকাদের আড্ডাখানা নামক ফেসবুক গ্রুপ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। রিভিউ লিখেছেন: মাসুম আহমেদ আদি

সতর্কতাঃ বইটি শিশু-কিশোররা পড়বে এইটাই আমাদের মৌলিক উদ্দেশ্য। এখানে আমার কোন ব্যক্তিগত কিংবা ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য নেই। আমি শুধু চেষ্টা করেছি সবচেয়ে সহজ উপায়ে একটি বই শিশু-কিশোরদের মাঝে পৌছে দেওয়ার। যদি কোন ব্যক্তি কিংবা প্রতিষ্ঠান কোন অসৎ উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে এই বইটি ডাউনলোড করে থাকেন এবং ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে প্রস্তুত ও বিপনন করে থাকেন তবে পরবর্তিতে কপিরাইট সংক্রান্ত সমস্ত দায়ভার ডাউনলোডকারীর। কোন ভাবেই সেই দায়ভার শিশু-কিশোর.অর্গ বহন করবে না। সুতরাং বই ডাউনলোড করুন, শেয়ার করুন, নিজে আলোকিত হোন, অন্যকে আলোকিত করুন। বাংলাভাষায় সাহিত্য বিস্তারে শিশুদের মধ্যে অনুপ্রেরণা জাগান।

3 comments

  1. আপনাদের উদ্দেশ্যকে সাধুবাদ জানাই :)

    ReplyDelete
  2. রিভিউ লিখলে কীভাবে পোস্ট করবো?

    ReplyDelete
    Replies
    1. কমেন্টে লিখে দিলেই হবে। ভাল রিভিউ হলে আমি সেটি মূল পোষ্টের নিচে যুক্ত করে দিবো।

      Delete

Home